মোঃ সাদ্দাম হোসেন,মাটিরাঙ্গা(খাগড়াছড়ি):

নির্বাচনের আর মাত্র একদিন বাকি। আগামী বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) মাটিরাঙ্গার ৭ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে মাটিরাঙ্গার ৭ টি ইউনিয়ন।

মঙ্গলবার(৮ নভেম্বর) সরেজমিনে দেখা গেছে, প্রার্থী, প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের প্রচার-প্রচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে মাটিরাঙ্গার তাইন্দং,তবলছড়ি,বর্ণাল,আমতলি,গোমতী, বেলছড়ি এবং মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়নের সব এলাকা। এবারের নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নেওয়ায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর মাথা ব্যথা দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী।

নিজের দলের বিদ্রোহী প্রার্থীরা ঘুম কেড়ে নিয়েছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের। তবে ভেদাভেদ ভুলে উন্নয়নের আশায় দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য উপজেলা পর্যায়ের নেতারা বিভিন্ন এলাকায় সভা-সমাবেশ করে নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে চলেছেন।

তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো.আবুল কাশেম ভূঁইয়া নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. নূর মোহাম্মদ এর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেন, তিনি সাধারণ ভোটারদেরকে ভয় ভীতি দেখাচ্ছে। প্রচারণায় বাধা দিচ্ছে।এছাড়াও,কেন্দ্র দখলের শঙ্কা আছে বলে জানান তিনি।

অন্যদিকে,তাইন্দং ও বেলছড়ি ইউনিয়নের দলীয় প্রার্থী পেয়ার আহম্মেদ মজুমদার, মো. রহমত উল্লাহ বলেন, জনগণ উন্নয়নের স্বার্থে নৌকা প্রতীকে ভোট দিবে। নির্বাচন নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই। সুষ্ঠু ও স্বাভাবিক নির্বাচনের মাধ্যমে নৌকা প্রতীকের জয় নিশ্চিত হবে।

সাধারন ভোটাররা জানান, আগামী ১১ নভেম্বর নির্বাচনের মাধ্যমে আমরা আমাদের যোগ্য প্রার্থীকে বেছে নিবো। কোনো প্রকার সহিংসতা না হয়ে ভোট কেন্দ্রে সুন্দর পরিবেশ থাকলে শতভাগ ভোটারদের উপস্থিতি থাকবে। অনেক ভোট কেন্দ্র দুরে এবং দূর্গম এলাকায় হওয়ায় সাধারণ ভোটাররা উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

এদিকে ৬নং মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদপ্রার্থী অনিল বিকাশ ত্রিপুরা অভিযোগ করে বলেন,তার নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী দিপার মোহন ত্রিপুরা ও তার কর্মী সমর্থকরা বাধা প্রদানসহ কেন্দ্র দখলের লিখিত অভিযোগ করেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসারের নিকট।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা বলেন,আমরা ৭ টি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের জয় নিশ্চিত করতে সভা করে যাচ্ছি। জনগনের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি।তবে তবলছড়ি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কাশেম ভূঁইয়া তার পালিত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বাহিনী দিয়ে কয়েকটি কেন্দ্র দখল করার পায়তারা চালিয়ে যাচ্ছে। এব্যাপারে নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

৭ নভেম্বর মাটিরাঙ্গায় নির্বাচনী আইন শৃংখলা সভায় খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, আগামী ১১ নভেম্বরের নির্বাচনে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, আনসার, বিডিপির পাশাপাশি র্্যব ও বিজিবি মোতায়ন করা হবে। যদি কোনো প্রার্থী বা কর্মী সহিংসতা সৃষ্টি করে সে যে দলেরই হোক সাথে সাথে আইনের আওতায় আনা হবে। সকল সাধারণ ভোটারদেরকে নির্বাচনে গিয়ে ভোট প্রদানের আহবান জানান।

আরো পড়ুন :-

Related Post

মাটিরাঙ্গা ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের সাথে নির্বাচনী আচরণ বিধি প্রতিপালন ও আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে মতবিনিময় সভা।

Posted by - নভেম্বর ৭, ২০২১
মোঃ সাদ্দাম হোসেন, মাটিরাঙ্গাঃ দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাচন…

মাটিরাঙ্গায় ৫০তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত। 

Posted by - নভেম্বর ৬, ২০২১
মোঃ সাদ্দাম হোসেন, মাটিরাঙ্গা: ”বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ের উন্নয়ন”এই প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে ৫০তম জাতীয় সমবায় দিবস ২০২১ উদযাপন উপলক্ষে মাটিরাঙ্গায় উপজেলা…

মাটিরাঙ্গা অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের মাঝে আর্থিক অনুদান প্রদান।

Posted by - নভেম্বর ৮, ২০২১
মোঃ সাদ্দাম হোসেন,মাটিরাঙ্গা(খাগড়াছড়ি): খাগড়াছড়ি মাটিরাঙ্গা উপজেলায় অযোধ্যা বাজারে অগ্নিকান্ডে পুড়ে যাওয়া ক্ষতিগ্রস্থ ৭ সাত ব্যবসায়ীদের মাঝে আর্থিক অনুদান ও টিন…

Leave a comment

Your email address will not be published.